বড়লোকের এমনই আজব ৪টি শখের কথা

বন্ধুরা কেমন আছেন? আপনাদের সবাইকে আমাদের আজব চ্যানেলে আবারও স্বাগতম। জানেন তো টাকা থাকলে শখের চাকা বেহুদাই ঘোরে। তাই তো কিছু কিছু ধনাঢ্য ব্যক্তির শখের কথা শুনলে আমার মত বিড়ালের আর আপনার মত মানুষের মাথা ঘুরবে ভন ভন করে। তাহলে আসুন বড়লোকের এমনই আজব ৪টি শখের কথা শোনাই।

পর্দায় বে ব্যক্তির ছবি দেখছেন এই ভদ্রলোক একবার চুল কাটতেই প্রায় ২০ লক্ষ টাকা খরচ করেন। উনি হলেন ব্রুনাইয়ের সুলতান হাজী হাসানাল বল্কিয়া। ব্রুনাইয়ের এই ধনকুবের একবার তার চুল কাটানোর জন্য লন্ডন থেকে তার প্রিয় নাপিত কে সিঙ্গাপুরের বিশেষ একটি ফ্লাইটে নিজ দেশে উড়িয়ে নিয়ে যান এবং ঘরে বসে আরামসে চুল কাটান। এতে তার ২৪ হাজার ডলার খরচ হয় বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় ২০ লাখের কাছাকাছি।

অনলাইন দুনিয়ায় ঝড় তোলা সেরা ১০ ইন্টারনেট মেমস

এবার যার কথা বলবো তিনি হলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের ধনকুবের শেখ হামাদ বিন হামদান আল নাহিয়ান। এই ভদ্রলোক নিজের নামকে মহাবিশ্ব পর্যন্ত ছড়িয়ে দিতে আজব এক কান্ড ঘটান। তিনি নিজের নামে একটি দ্বীপ কিনেন সেই দ্বীপে কৃত্রিম উপায়ে খাল খনন করে ইংরেজীতে হামাদ লিখেন।

বড়লোকের আজব ৪টি শখ

সেই অক্ষরগুলো এতটাই বড় যে অক্ষরগুলোর একেকটি রেখা প্রায় ১ কিলোমিটারেরও বেশী দৈর্ঘ্য ও প্রস্থে প্রসারিত। তাই চাঁদ থেকেও দেখা যেত এই নাম, স্পষ্ট দেখা যেত গুগল আর্থ থেকেও। এই নাম লেখাতে কত খরচ হয়েছে তা জানা যায়নি তবে তা কয়েক হাজার কোটি টাকার নীচে নয়। কিন্তু দু:খের বিষয় আবার অনেক টাকা খরচ করে সেটি মুছেও ফেলেছেন খেয়ালী এই শেখ।

এখন যার কথা বলবো উনি হলে সৌদি রাজপুত্র আলওয়ালিদ বিন তালাল। উনার শখ দামী দামী সব গাড়ি সংগ্রহ করা। সেই শখের বশে উনি বিখ্যাত গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মার্সিডিজ বেঞ্জকে দিয়ে পুরো হীরা খচিত একটি গাড়ি নির্মান করেন। সেই গাড়ি কোথায় লাগানো হয়নি হীরে? গাড়ির হাতল থেকে চাকা সর্বত্র শুধু ঝলমলে হিরে। এই গাড়ি নির্মাণে রাজপুত্র খরচ করতে হয়েছে ৩শ ৯৬ কোটি টাকা। বাবারে এটা শুনে আমার তো মাথা ঘুরাচ্ছে। যাক মাথায় পানি ঢালার পর আবার হুঁশ ফিরে পেলাম।

কৃষ্ণগহবর বা ব্ল্যাকহোল সম্পর্কে অজানা সব রহস্য

এবার আপনাদেরকে যে বিষয়ে জানাব সেটা একক কোন ধনী ব্যক্তিকে নিয়ে নয় বরং একদল ধনী গোষ্ঠীকে নিয়ে এদের বাস। আবার চীনে এই ধনাঢ্য ব্যক্তিরা খেতে ভালবাসেন মায়েদের বুকের দুধ। তবে নিজেদের মায়ের নয় সদ্য মা হওয়া মেয়েদের।সেখানে মায়েদের বুকের দুধের এতটাই চাহিদা, যে হংকংয়ের সীমান্তবর্তী শেঝেন শহরে শিনশিনইউ নামের একটি প্রতিষ্ঠান বিপুল অর্থের বিনিময়ে বুকের দুধদানে সক্ষম নারীদের মাধ্যমে সম্পদশালী চীনের জনগণের চাহিদা পূরণ করছে।

তবে বর্হিবিশ্বে এটাকে বিকৃত রুচি হিসেবে দেখা হলেও সেখানেও ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়ছে এর জনপ্রিয়তা। আর এটা জেনে আমার তো বমি পাচ্ছে। তাহলে বন্ধুরা কেমন লাগলো আমাদের ভিডিও তা মন্তব্যের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না অন্যদের জন্য শেয়ার করুন আর সাবস্ক্রাইব করা না থাকলে এক্ষুনি সাবস্ক্রাইব করে নিন

1 thought on “বড়লোকের এমনই আজব ৪টি শখের কথা”

  1. Pingback: আস্ত একটি দেশ ভেঙ্গে যেভাবে জন্ম নিল দক্ষিণ ও উত্তর কোরিয়া – Yify Subtitles

Leave a Comment