বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০ দেশ

এই পৃথিবীতে ধনী ও বড় দেশের সাথে সাথে কিছু ছোট দেশও আছে। যেগুলো আয়তনের দিক থেকে অনেক দেশের গ্রামের থেকেও ছোট। এখন আমি আপনাদেরকে জানাচ্ছি বিশ্বের এমনই ১০টি ছোট দেশ সম্পর্কে। গ্রেনাডা (Grenada) গ্রেনাডা ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে অবস্থিত একটি দ্বীপ রাষ্ট্র।

এর আয়তন ৩৪৪ বর্গ কিলোমিটার। এই দেশে যে পরিমান জয়ফল ও জয়ত্রী চাষ হয়। তা বিশ্বের আর কোথাও হয়না। ত্রিনিদাদ ও টোব্যাগোর উত্তর-পূর্ব পাশে অবস্থিত গ্রানাডায় ফরাসি সংস্কৃতির প্রভাব রয়েছে। ১৯৭৪ সালে ফ্রান্স থেকে স্বাধীন হওয়া।

দেশটির জনসংখ্যা ১ লক্ষ ১০ হাজার। আর তাদের প্রিয় খেলা ক্রিকেট মাল্টা (Malta)। মাল্টার অবস্থান ভূমধ্য সাগরে ৩১৬ বর্গ কিলোমিটার। আয়তনের এই দেশের জনসংখ্যা প্রায় সাড়ে ৪ লক্ষ। তাই স্বাভাবিক ভাবেই দেশটির কপালে জনবহুল দেশের তকমা জুটেছে।

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০ দেশ

৩টি দ্বীপ মিলে তৈরি হওয়া রিপাবলিক অব মাল্টা পর্যটকদের কাছে খুবই জনপ্রিয় মালদ্বীপ (Maldives)। সার্ক ভুক্ত এশিয়ার দ্বীপ রাষ্ট্র মালদ্বীপের আয়তন মাত্র ৩০০ বর্গ কিলোমিটা।র ভারত মহাসাগরে অবস্থিত এই দেশটি এশিয়ার সবচেয়ে ক্ষু্দ্র দেশ দেশটির জনসংখ্যা ৪ লাখ রয়েছে।

১ হাজার ৯শ ৯২টি প্রবাল দ্বীপ। এই দ্বীপগুলো আবার ৯০ হাজার বর্গ কিলোমিটার। এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে ১৯৬৫ সালে স্বাধীন হওয়া দেশটির আয়েন অন্যতম উৎস হল পর্যটন। প্রতি বছর হাজার হাজার পর্যটক এখানে আনন্দ ভ্রমনে আসেন। সেন্ট কিটস এন্ড নেভিস (Saint Kitts and Nevis) ক্যারিবিয়ান আইল্যান্ডে অবস্থিত।

সেন্ট কিটস এন্ড নেভিসের আয়তন ২৬১ বর্গ কিলোমিটার এই দেশটিও পর্যটকদের জন্য তীর্থভূমি। দেশটির জনসংখ্যা মাত্র ৫৫ হাজার। নাগরিকদের মাঝে বৃটিশ সভ্যতার ছাপ সুস্পষ্ট লিচেনস্টাইন (Liechtenstein)। উঁচু পাহাড়ের উপর বসা এটাই পৃথিবীর একমাত্র দেশ যা অস্ট্রেলিয়া ও সুইজারল্যান্ডের মধ্যখানে অবস্থিত।

দেশটির আয়তন ১৬০ বর্গ কিলোমিটার এই দেশে কোন বেকার নেই। আর মাথা পিছু আয়ের তথ্যানুসারে এটি পৃথিবীর ধনী দেশও বটে। তবে এখানে গণতন্ত্র নেই, আছে রাজপরিবারের শাসন স্যানমেরিনো (San Marino) চারদিকে ইতালি পরিবেষ্টিত। শান্তি প্রিয় দেশ স্যানমেরিনোর আয়তন ৬২ বর্গ কিলোমিটার।

সেন্ট কিটস এন্ড নেভিস (Saint Kitts and Nevis)

৩০ হাজার বাসিন্দার এই দেশ, পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাচীন সার্বভৌম দেশের একটি এই দেশেও বেকারত্ব নেই এবং এটিও পৃথিবীর ধনী দেশের মধ্যে অন্যতম। টুভালু (Tuvalu) অষ্ট্রেলিয়ায় অবস্থিত, টুভালুর আয়তন মাত্র ২৬ বর্গ কিলোমিটার। আর জনসংখ্যা মাত্র ১০ হাজার, ১৯৭৮ সালে স্বাধীন হওয়া দেশটিতে ৮ কিলোমিটার রাস্তা রয়েছে।

আর রয়েছে মাত্র একটি হাসপাতাল দেশটিতে কোন রাজনৈতিক দল নেই। নাউরু (Nauru) অষ্ট্রেলিয়ায় অবস্থিত ২১ বর্গ কিলোমিটারের দেশ নাউরু পৃথিবীর একমাত্র এক খন্ডের দ্বীপ রাষ্ট্র। এই দেশের ৯০ শতাংশ লোক বেকার আর ১০ শতাংশ মানুষ সরকারি দপ্তরে চাকুরী করে। আবহাওয়াগত কারনে এই দেশটি সবচেয়ে মোটা লোকের দেশ হিসেবে স্বীকৃত।

মহাকাশ সম্পর্কে ২০ আজব ও বিস্ময়কর তথ্য

এখানে ৯৭ শতাংশ পুরুষ এবং ৯৩ শতাংশ মহিলাই। বেশ মোটা মোনাকো (Monaco) মাত্র ২ কিলোমিটারের দেশ। মোনাকো ইউরোপের খুবই ধনী দেশের একটি দেশটিতে জুয়া ও আমোদ প্রোমোদের ব্যাপক সুবিধা থাকায় এখানে ধনী লোকদের আনোগোনা খুব বেশী।

দেশটির জনসংখ্যা ৩৬ হাজার। এখানেই আছে ফর্মুলা ওয়ান ট্র্যাক। তাই গাড়ির রেস পছন্দ করেন এমন লোকদের কাছেও দেশটি সমানভাবে জনপ্রিয়। ভ্যাটিকান (Vatican City) আধা কিলোমিটারেরও কম অর্থ্যাৎ ০.৪৪ বর্গ কিলোমিটারের দেশ ভ্যাটিক্যানের জনসংখ্যা মাত্র ৮৪২জন। ইতালির রোম শহরের কেন্দ্রবিন্দুতে অবস্থিত এই দেশটি। এতটাই ছোট যে একে ভ্যাটিকান সিটি নামেও ডাকা হয়।

1 thought on “বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ১০ দেশ”

  1. Pingback: মহাকাশ সম্পর্কে ২০ আজব ও বিস্ময়কর তথ্য – Yify Subtitles

Leave a Comment