বলিউডের ১০ ব্যাকগ্রাউন্ড শিল্পী

যারা আজ প্রথম সারির তারকা ছাঁই চাপা আগুন আর মেধা কোনটাকেই আটকে রাখা যায়না। ঠিক তেমনি ভারতীয় চলচ্চিত্র ইন্ডাষ্ট্রি এমন কিছু শিল্পীর দেখা পেয়েছে যাদের শুরুটা খুব জমকালো করে হয়নি। তারা তাদের ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন একজন ব্যাকগ্রাউন্ড শিল্পী হিসেবে। এখন আমি আপনাদেরকে জানাচ্ছি এমনই ১০জন বলিউড শিল্পী সম্পর্কে।

কাজল আগরওয়াল

তেলেগু, তামিল এবং কিছু বলিউড সিনেমার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর শুরুটা হয়েছিল ২০০৪ এ কিউ হোগ্যায়া ছবির একজন ব্যাকগ্রাউন্ড আর্টিষ্ট হিসেবে। সেখানে তাকে দিয়া নামে ঐশ্বরিয়ার সহশিল্পী হিসেবে ‘পেয়ার ছে সব উলঝানিয়া’ গানে নাচতে দেখা যায়।

ডেইজি শাহ ২০১৪ সালে সালামের বিপরীতে জয় হো সিনেমা এবং কিছু কান্নাড়া ছবি দিয়ে আলোচনায় আসা। ডেইজির ক্যারিয়ার শুরু হয় একজন ব্যাকগ্রাউন্ড ড্যান্সার হিসেবে। তাকে তেরে নাম ছবিতে সালমানের সাথে লাগান লাগি গানে নাচতে দেখা যাচ্ছে এবং টাইটেল সং মাস্তিতেও ছিলেন।

তিনি সুশান্ত সিং রাজপুত

সম্প্রতি বলিউড সিনেমাতে আলোচনায় আসা জনপ্রিয় টিভি তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের শুরুটা হয়েছিল সামন্ত ধাবর ড্যান্স কোম্পানীর একজন ড্যান্সার হিসেবে। এর মাধ্যমেই সে ২০০৫ ও ২০০৬ এ আইফা অ্যাওয়ার্ডে ব্যাকগ্রাউন্ড ড্যান্সার হিসেবে পারফর্ম করেন।

দিয়া মির্জা মিস ইন্ডিয়া দিয়া মির্জা বলিউডে বেশ কয়েকটি আলোচিত ছবির নায়িকা হলেও বলিউডে তার আগমন একজন সহশিল্পী হিসেবেই । ১৯৯০ সালে তামিল ছবি ‘ইন সসা কাতরে’র একটি গানের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে পা রাখেন শহীদ কাপুর বলিউডের আরেক নামকরা হিরো শাহীদ কাপুরের ডেব্যুটাও কিন্তু সেই সহশিল্পী হিসেবে।

শাহীদ কাপুর

শহীদ ১৯৯৭ সালে প্রথম দিল তো পাগল হ্যায় ছবির লে গায়ি গানে কারিশমা কাপুরের সহশিল্পী হিসেবে পর্দায় আসেন। দুই বছর পর তাল ছবির কাহি আগ লাগে গানে ঐশ্বরিয়ার সাথে পারফর্ম করেন। আরশাদ ওয়ার্সী অনেকেই হয়ত জানেন না মুন্নাভাইয়ের সার্কিট খ্যাত আরশাদের শুরুটা হয়েছিল একজন কোরিওগ্রাফার এবং ব্যাকগাউন্ড ড্যান্সার হিসেবে।

১৯৮৯ সালে আগ ছে খেলেঙ্গে ছবির হেল্প মি গানে সহযোগী ড্যান্সার হিসেবে বলিউডে পা রাখেন। আরশাদ রেমো ডিসুজা বলিউডের নামকরা এই কোরিওগ্রাফারের শুরুটা হয়েছিল। একজন সহযোগী নৃত্য শিল্পী হিসেবে শাহরুখ খানের পরদেশ ছবিতে মেরি মেহবুবা গানের মাধ্যমে চলচ্চিত্রের রুপালি জগতে আগমন ঘটে রেমোর।

শাহরুখ খান

এছাড়া আফলাতুনে অক্ষয়ের সাথেও নাচতে দেখা যায় তাকে। স্মৃতি ইরানি বর্তমানের রাজনীতিবিদ ও মন্ত্রী এবং সাবেক টিভি তারকা অভিনেত্রী। স্মৃতি ইরানির শুরটা হয়েছিল একটি মিউজিক ভিডিওর সহ নৃত্য শিল্পী হিসেবে। ফারহা খান বলিউড, রিয়েলিটি শো সব কিছুতে নিজ প্রতিভার স্বাক্ষর রাখা ফারহা খানের শুরুটা হয়েছিল ১৯৮৬ এ মুক্তি পাওয়া চলচ্চিত্র সদা সোহাগানের হ্যাম হ্যায় নওজোয়ান গানে।

মুরগীর ফার্মের নিষ্ঠুরতা দেখলে আপনার চোঁখেও পানি আসবে

গোবিন্দের সাথে ব্যাকগ্রাউন্ড ড্যান্সার হিসেবে সরোজ খান বলিউডের অন্যতম নামকরা কোরিওগ্রাফার সরোজ খান। তার কর্মের মাধ্যমে বলিউড জগতে নিজের একটি স্থায়ী জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছেন। সেই সরোজ খানের শুরুটাও কিন্তু হয়েছিল ১৯৫৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত হাড়রা ব্রিজ ছবির আইয়ে মেহেবান গানের মধ্য দিয়ে।

Leave a Comment