আস্ত একটি দেশ ভেঙ্গে যেভাবে জন্ম নিল দক্ষিণ ও উত্তর কোরিয়া

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আগে থেকে শুরু হওয়া আমেরিকা-রাশিয়ার ঠান্ডা যুদ্ধের সময়ের আরেকটি উপাখ্যান হল। কোরীয় উপদ্বীপ ভেঙ্গে দুই কোরিয়া জন্ম নেয়ার ইতিহাস। এখন আমি আপনাদেরকে জানাচ্ছি কোন ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আর কোন পরিস্থিতিতে কোরীয় উপদ্বীপ ভেঙ্গে জন্ম নিল দক্ষিণ ও উত্তর কোরিয়া।

দক্ষিণ কোরিয়া

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কালে কোরীয় উপদ্বীপের নিয়ন্ত্রন ছিল জাপানীদের হাতে। কিন্তু ১৯৪৫ সালে জাপান দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে হেরে বিপর্যস্থ হয়ে গেলে জাপানের পরাজিত সৈন্যরা ভগ্ন মনোরথে কোরিয় উপদ্বীপ ত্যাগ করে। ফলশ্রুতিতে ব্যাপকভাবে ধ্বংসপ্রাপ্ত এবং বিশৃঙ্খল কোরীয় উপদ্বীপকে নিয়ন্ত্রনের জন্য জাতিসংঘের তত্বাবধানে অঞ্চলটিতে প্রশাসন নিয়োগের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়।

তারই অংশ হিসেবে জাতিসংঘ কোরিয়া উত্তরাঞ্চলে সোভিয়েত ইউনিয়ন বা রাশিয়া এবং দক্ষিণাঞ্চলে মার্কিন যুদ্ধরাষ্ট্রকে নিয়ন্ত্রনের দায়িত্ব দেয়। এরই প্রেক্ষিতে ১৯৪৮ সালে কোরিয় উপদ্বীপে দুটি পৃথক রাষ্ট্রের সৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয় তবে স্বাধীন দুটি রাষ্ট্র জন্ম নেয়ার আগে তাদেরকে বেশ বন্ধুর পথ পাড়ি দিতে হয়েছে।

বড়লোকের এমনই আজব ৪টি শখের কথা

১৯৫০ থেকে শুরু হওয়া কোরীয় যুদ্ধ ১৯৫৩ সালে শেষ হওয়ার মধ্য দিয়ে দুটি দেশ জন্মের পথ সুগম হয়। এ সময় বিবাদমান দুটি পক্ষের মধ্যে ব্যাপক লড়াই সংগ্রাম হয় কোরিয়ার উত্তরের সাম্যবাদী বাহিনী নেতৃত্ব দেন কিম জং উনের দাদা কিম ইল সুং। আর তাদেরকে পিছন থেকে মদদ জোগায় চীন ও সোভিয়েত ইউনিয়ন ইউনিয়ন।

উত্তর কোরিয়া

কিম ইল সুং আগে থেকেই জাপানিদের বিরুদ্ধে লড়াই করছিলেন সোভিয়েতরাও তাকে সমর্থন দিচ্ছিলো। পরবর্তীকালে কিম ইল সুং এর নেতৃত্বে সমাজতান্ত্রিক দেশ হিসেবে উত্তর কোরিয়ার উদ্ভব হয়। অন্যদিকে ওই একই সময়ে কোরিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে সাম্যবাদ বিরোধী বাহিনীর নেতৃত্ব দেন জাতীয়তাবাদী নেতা রী সিংম্যান। তাদেরকে মদদ জোগায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং স্বয়ং জাতিসংঘ।

সিংম্যানও জাপানের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিলেন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত জীবন যাপন করছিলেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাঁকে সমর্থন দেয় এবং ১৯৪৮ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পৃষ্টপোষকতায় এক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনের পর কোরিয়ার দক্ষিণে রিপাবলিক অব কোরিয়ার উদ্ভব হয় এবং তারা পুঁজিবাদের পথ বেছে নেয়।

ক্যামেরায় ধরা পড়া ৮টি আজব ও অদ্ভুত ঘটনা

এভাবেই দুই পরাশক্তির বৈপরিত্যের কারনে একটি দেশ ভেঙ্গে জন্ম নেয় ভিন্ন মতাদর্শের দুটি দেশ। সেই দেশ দুটি আজ দক্ষিন কোরিয়া এবং উত্তর কোরিয়া নামে পরিচিত। ভিডিওটি দেখার পর আমাদের প্রতি আপনার ভালবাসার স্মারক হিসেবে চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করতে ভুলবেন না

Leave a Comment